আমেরিকাকে পিছনে ফেলে দৌড়বে চীনের অর্থনীতি: সমীক্ষা রিপোর্ট বিশ্বে প্রথম পাঁচে থাকবে ভারত

আমেরিকাকে পিছনে ফেলে দৌড়বে চীনের অর্থনীতি: সমীক্ষা রিপোর্ট  বিশ্বে প্রথম পাঁচে থাকবে ভারত

করোনাই চীনের পৌষমাস। কোভিড পরবর্তী পরিস্থিতিতে আমেরিকার অর্থনীতিকে পিছনে ফেলে এগিয়ে যেতে পারে চীন। এমনই আভাস দিল আন্তর্জাতিক অর্থভাণ্ডার (আইএমএফ)। সমীক্ষায় প্রকাশ, গোটা বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে শক্তিশালী মার্কিন অর্থনীতি এবার ড্রাগনের দেশের কাছে অনেকটাই পিছিয়ে পড়তে পারে। আন্তর্জাতিক অর্থভাণ্ডারের মতে, আগামী বছর গোটা বিশ্বের সামগ্রিক আর্থিক বৃদ্ধির নিরিখে চীনের অংশীদারিত্ব থাকতে পারে ২৬.৮ শতাংশ। ২০২৫ সালে তা পৌঁছে যাবে ২৭.৭ শতাংশে। ওই সমীক্ষায় আরও বলা হয়েছে, কয়েক বছরের মধ্যে আমেরিকার তুলনায় চীনের জিডিপি বৃদ্ধি পাবে ১৫ থেকে ১৭ শতাংশ। একইসঙ্গে, আগামী বছর গড় আর্থিক বৃদ্ধির হারে বিশ্বের যে ক’টি দেশ একেবারে সামনের সারিতে থাকতে পারে, তার মধ্যে জায়গা করে নেবে ভারত। প্রথম পাঁচ নম্বরের মধ্যে ভারত ছাড়াও তালিকায় জার্মানি ও ইন্দোনেশিয়ারও থাকার সম্ভাবনা রয়েছে।
আন্তর্জাতিক অর্থভাণ্ডারের সমীক্ষা অনুযায়ী, চলতি বছর গোটা বিশ্বে সামগ্রিকভাবে জিডিপি ৪.৪ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে। গত জুনে তা নেমে গিয়েছিল ৪.৯ শতাংশে। এর পর কয়েকমাসে পরিস্থিতির খানিকটা উন্নতি হয়েছে। চলতি সপ্তাহের একটি পরিসংখ্যানে আশা প্রকাশ করা হয়েছে, মন্দা কাটিয়ে আগামী বছর বিশ্বে জিডিপি বৃদ্ধি পেতে পারে ৫.২ শতাংশ। যদিও আন্তর্জাতিক অর্থভাণ্ডার মনে করছে, আগামী বছর চীনের ৮.২ শতাংশ জিডিপি বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে। সেখানে আমেরিকার আর্থিক বৃদ্ধি হতে পারে ৩.১ শতাংশ। গোটা বিশ্বের গড় আর্থিক বৃদ্ধির হারের নিরিখে সেক্ষেত্রে তাদের অংশীদারিত্ব থাকতে পারে ১১.৬ শতাংশ।