কাল আসছেন ডেপুটি নির্বাচন কমিশনার, বৈঠক জেলাশাসক ও পুলিস কর্তাদের সঙ্গে 

কাল আসছেন ডেপুটি নির্বাচন কমিশনার, বৈঠক জেলাশাসক ও পুলিস কর্তাদের সঙ্গে 

আগামিকাল বুধবার রাতে শহরে আসছেন ডেপুটি নির্বাচন কমিশনার সুদীপ জৈন। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে তিনটে থেকে মধ্য কলকাতার একটি পাঁচতারা হোটেলে প্রত্যেক জেলার পুলিস সুপার, জেলাশাসক, পুলিস কমিশনার, ডিভিশনাল কমিশনার, জোনাল আইজি এবং ডিআইজি’র সঙ্গে বৈঠক করবেন ডেপুটি নির্বাচন কমিশনার। বৈঠক চলবে রাত আটটা পর্যন্ত। এই বৈঠকে যোগ দেওয়ার আগে বুথের পরিকাঠামো, করোনা পরিস্থিতিতে ব্যবস্থাগ্রহণ পদ্ধতি এবং আইনশৃঙ্খলা নিয়ে পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট তৈরি করতে প্রত্যেক জেলাশাসক-পুলিস সুপারকে মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিকের দপ্তর থেকে নির্দেশ পাঠানো হয়েছে। প্রতি সোমবার জেলা থেকে আইনশৃঙ্খলার রিপোর্ট জমা পড়ে মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিকের দপ্তরে। এদিনও তার অন্যথা হয়নি। সেই রিপোর্ট পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে দিল্লির নির্বাচন কমিশনের দপ্তরে।
এদিকে, ২৫ ফেব্রুয়ারির মধ্যে রাজ্যে ১২৫ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী চলে আসবে। এখনও পর্যন্ত ৪২ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী এসেছে। কোথায় কোথায় তারা টহলদারি করবে, তা জেলাশাসক, পুলিস সুপার এবং কেন্দ্রীয় বাহিনীর নোডাল অফিসাররা আলোচনা করে ঠিক করছেন। রাজ্য স্তরে রাজ্য পুলিস, বিএসএফ এবং সিআরপিএফের নোডাল অফিসার আলোচনা করে বাহিনী মোতায়েন করবেন। তবে শুধু পশ্চিমবঙ্গে ভোটারদের আস্থা ফেরাতে কেন্দ্রীয় বাহিনী পাঠানো হয়নি, অন্য যেসব রাজ্যে ভোট রয়েছে, সেখানেও কেন্দ্রীয় বাহিনী পাঠানো হয়েছে বলে কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশন থেকে প্রেস নোট জারি করে বলা হয়েছে।
ভোটের প্রস্তুতি নিয়ে এই নিয়ে তিনবার রাজ্যে এলেন পশ্চিমবঙ্গের দায়িত্বপ্রাপ্ত ডেপুটি নির্বাচন কমিশনার সুদীপ জৈন। ডিসেম্বর মাসে এসে তিনি উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে ঘুরে বেরিয়েছেন। জানুয়ারি মাসে যখন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার সুনীল অরোরা সহ ফুল বেঞ্চ এসেছিল, তখনও তিনি এসেছিলেন। বৈঠকে জেলাশাসক, পুলিস সুপার, পুলিস কমিশনারদের মুখ্য নির্বাচন কমিশনার যেসব নির্দেশ দিয়ে গিয়েছিলেন, তা কতটা কার্যকর হয়েছে, তাও খতিয়ে দেখবেন বলে কমিশন সূত্রে জানা গিয়েছে। বৃহস্পতিবার সাড়ে তিনটে থেকে বৈঠকের কর্মসূচি ঠিক থাকলেও সকালের দিকে তিনি কী করবেন, তা এখনও ঠিক হয়নি। রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধি এবং স্বাস্থ্যসচিব নারায়ণ স্বরূপ নিগম সহ রাজ্য প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিদের সঙ্গে বৈঠকেও বসতে পারেন বলে জানা গিয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় তিনি দিল্লি ফিরে যাবেন। তাঁর সফর নিয়ে রীতিমতো ব্যস্ততার ধূম পড়ে গিয়েছে মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিকের দপ্তরে। আজ মঙ্গলবার বেলা দু’টোয় ভাষা ভবনে মিডিয়া ওয়ার্কশপ করবেন মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক আরিজ আফতাব।