কী কী খেলে বাড়বে রোগ প্রতিরোধক ক্ষমতা

কী কী খেলে বাড়বে রোগ প্রতিরোধক ক্ষমতা

করোনা সংকটে রোগ প্রতিরোধক ক্ষমতা বাড়াতে উদ্যোগী বহু মানুষ। কিন্তু কীভাবে বাড়তে পারে ইমিউনিটি? সম্প্রতি রোগ প্রতিরোধক ক্ষমতা বাড়ানোর জন্য ভিটামিন এ-র কার্যকারিতার কথা ফের মনে করিয়ে দিল ফুড সেফটি অ্যান্ড স্ট্যান্ডার্ডস অথরিটি অফ ইন্ডিয়া। তারা ট্যুইটারে জানিয়েছে, বেশি পরিমাণে এমন খাবার খাওয়া উচিত, যাতে ভিটামিন এ প্রচুর পরিমাণে রয়েছে। পাশাপাশি প্যাকেটজাত খাবার সরিয়ে রেখে সরাসরি গাছ থেকে পেড়ে আনা আনাজপাতি ও ফল খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। এতে শুধু যে রোগ প্রতিরোধক ক্ষমতা বাড়বে, তা নয়। পাশাপাশি চোখের দৃষ্টিশক্তিও বাড়বে।
কী কী খেলে রোগ প্রতিরোধক ক্ষমতা বাড়তে পারে, তার একটা রূপরেখা দিয়েছেন এই কেন্দ্রীয় খাদ্য নিয়ামক সংস্থার কর্তারা। তাঁদের কথায়, মিষ্টি আলু বা রাঙা আলুতে প্রচুর পরিমাণে শুধু যে ভিটামিন এ আছে, তা নয়। এতে রয়েছে ভিটামিন সি, যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে অনেকটাই সাহায্য করে। এতে যে পরিমাণে ফাইবার রয়েছে, তা স্থূলতা কমাতে যেমন সাহায্য করে, তেমনই কোলেস্টেরল এবং উচ্চ রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে। রাঙালুতে থাকা বিটা ক্যারোটিন ভিটামিনের কার্যক্ষমতাকে অনেকটাই বাড়িয়ে দেয়। এর পাশাপাশি পেঁপের কথা উল্লেখ করেছেন এই কেন্দ্রীয় সংস্থার কর্তারা। তাঁরা বলছেন, রাঙা আলু যতটা উপকারী, তার চেয়ে কোনও অংশে কম নয় পেঁপে। এতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে, যে কোনও খাবার হজম করিয়ে দেওয়ার পক্ষে এর জুড়ি মেলা ভার। তবে ভিটামিন এ-র জন্য খাবারের তালিকায় তাঁরা টমেটো, গাজর, আম এবং সবুজ শাকসব্জি রাখার কথা বলেছেন।
করোনা সংক্রমনের গোড়ার দিকে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে বেশ কিছু পরামর্শ দিয়েছিল ফুড সেফটি অ্যান্ড স্ট্যান্ডার্ডস অথরিটি অফ ইন্ডিয়া। তার মধ্যে অন্যতম ছিল বেশি পরিমাণে ভিটামিন সি খাওয়ার পরামর্শ। দফতরের কর্তারা জানিয়েছিলেন, এই তালিকায় প্রথমেই রাখা উচিত আমলকিকে। কারণ, এতে শুধুই যে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি আছে, তা নয়। রক্ত সঞ্চালন স্থিতিশীল করতে এবং রক্তের দূষণ রোধে এর কার্যকারিতা অতুলনীয়। পাশাপাশি সেই তালিকায় ছিল কমলালেবু, ক্যাপসিকাম, পেয়ারা এবং লেবুর মত পরিচিত ফল বা সব্জি, যাতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি আছে।