ব্রিটিশ মুদ্রায় স্থান পেতে পারেন গান্ধীজি, প্রস্তাব পাঠালেন সুনাক

ব্রিটিশ মুদ্রায় স্থান পেতে পারেন গান্ধীজি, প্রস্তাব পাঠালেন সুনাক

ব্রিটেনের ইতিহাসে কৃষ্ণাঙ্গদের অবদানকে সম্মান জানাতে বিশেষ উদ্যোগ নিল বরিস জনসন সরকার। তারই অংশ হিসেবে মহাত্মা গান্ধীর ছবি সম্বলিত নতুন মুদ্রা প্রকাশ করতে চাইছে তারা। রবিবার ভারতীয় বংশোদ্ভূত ব্রিটেনের অর্থমন্ত্রী ঋষি সুনাকের দপ্তর থেকে একথা জানানো হয়েছে। ইতিমধ্যেই প্রস্তাবিত ওই কয়েনের থিম এবং ডিজাইন রয়্যাল মিন্ট অ্যাডভাইজরি কমিটির কাছে জমা দিয়েছেন সুনাক।
বরিস জনসদের দেশে ‘উই টু বিল্ট ব্রিটেন’- নামে একটি প্রচার অভিযান শুরু হয়েছে। এতে বিশিষ্ট কৃষ্ণাঙ্গদের সম্মান জানিয়ে তাঁদের ছবি দিয়ে মুদ্রা প্রকাশ করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। সেই তালিকায় মহাত্মা গান্ধী ছাড়াও ভারতীয় বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ গুপ্তচর নুর ইনায়াত খান, জামাইকার ব্রিটিশ নার্স মেরি সিকোল রয়েছেন। ‘উই টু বিল্ট ব্রিটেন’ প্রচার অভিযানকে নেতৃত্ব দেওয়া জেহরা জাহিদিকে এ সংক্রান্ত একটি চিঠি লিখেছেন সুনাক। তাতে তিনি জানিয়েছেন, কৃষ্ণাঙ্গ, এশীয় ও অন্যান্য সম্প্রদায়ের বহু মানুষ ব্রিটেনের ইতিহাসকে সমৃদ্ধ করেছেন। জাতিগতভাবে সংখ্যালঘুরা এই দেশের জন্য লড়াই করেছেন, প্রাণ দিয়েছেন। তাঁরা আমাদের সন্তানকে পড়িয়েছেন, অসুস্থদের চিকিত্সা ও বয়স্কদের সেবা করেছেন। তাঁদের হাত ধরেই ব্রিটেনে বেশ কিছু ব্যবসা শুরু হয়েছে, যা বিপুল পরিমাণ কর্মসংস্থান তৈরি করে দেশকে সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে নিয়ে গিয়েছে। তাই আমি রয়্যাল মিন্ট অ্যাডভাইসারি কমিটির চেয়ারম্যানকে চিঠি লিখে সেই বিশিষ্ট ব্যক্তিদের অবদানকে সম্মান জানাতে বিশেষ মুদ্রা চালু করার অনুরোধ করেছি। প্রসঙ্গত, এর আগে ৫০ পাউন্ডের নোটে নুর ইনায়েত খানের ছবি রাখার জোর দাবি উঠেছিল। কিন্তু ব্যাঙ্ক অব ইংল্যান্ড জানিয়ে দেয়, ওই নোটে কম্পিউটার ব্যবহারের পথিকৃত অ্যালান টার্নিংয়ের ছবি দেখা যাবে।